পুলিশি নির্যাতনে মৃত্যু : সুনামগঞ্জের এসআই দেবাশীষ ক্লোজড।

0
247

এএসআই দেবাশীষ। ছবি : সংগৃহীত
এনটিভি অনলাইনের সর্বশেষ খবর পেতে গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি অনুসরণ করুন
সুনামগঞ্জে পুলিশি নির্যাতনে উজির মিয়ার মৃত্যুর ঘটনায় শান্তিগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) দেবাশীষকে ক্লোজ করা হয়েছে। গতকাল শনিবার তাঁকে ক্লোজ করে সুনামগঞ্জ পুলিশ লাইনসে যোগ করা হয়েছে।

এর আগে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আনেয়ার উল হালিমকে প্রধান করে তিন সদস্যর তদন্ত কমিটি গঠন করেন জেলা প্রশাসক। একই দিন ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে এসআই দেবাশীষকে দিরাই থানায় বদলি করা হয়।

গত শুক্রবার বিকেলে পরিকল্পনান্ত্রী এমএ মান্নান নিহতের বাড়িতে গিয়ে উজির মিয়ার পরিবারকে সুষ্ঠ বিচারের আশ্বাস দেন। পরে শনিবার এসআই দেবাশীষকে ক্লোজ করা হয়।

আজ রোববার শান্তিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুক্তাদির আহমদ এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, এসআই দেবাশীষকে ক্লোজ করে সুনামগঞ্জ পুলিশ লাইনসে নেওয়া হয়েছে।

গত ৯ ফেব্রুয়ারি শান্তিগঞ্জ উপজেলার দরগাপাশা গ্রামে একটি গরু চুরি হয়। সে চুরির মামলায় আসামি করা হয় একই উপজেলার শত্রুমর্দন গ্রামের উজির মিয়াকে। পরে রাতে তাঁকে ধরে নিয়ে থানায় নির্যাতনের অভিযোগ ওঠে।

‘গুরুতর আহত’ অবস্থায় উজির মিয়াকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরদিন আদালত তাঁকে জামিন দেন। ১০ ফেব্রুয়ারি জামিনের পরপরই উজির মিয়াকে সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত সোমবার ভোরে তাঁর মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় গত সোমবার দুপুর একটায় মানববন্ধন করেন এলাকাবাসী। মানববন্ধনে বিক্ষুব্ধ জনতার সঙ্গে কথা বলতে আসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)। ইউএনও’র গাড়িতে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী হামলা করতে গেলে চালক উজির মিয়ার মরদেহের ওপর দিয়ে গাড়ি নিয়ে চলে যায়। এতে আরও বেশি ক্ষুব্ধ হন তাঁরা। এ সময় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী লাঠিসোঁটা নিয়ে সড়কে অবস্থান নেন।

পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু সাঈদ ঘটনাস্থলে পৌঁছে শান্তিগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানসহ এলাকাবাসীকে ন্যায় বিচারের আশ্বাস দেন। পরে বিক্ষোভকারীরা অবরোধ তুলে নেন। এরপর আজ ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে এসআই দেবাশীষ ক্লোজ করা হলো

BÌNH LUẬN

Please enter your comment!
Please enter your name here